ছেলে নাকি মেয়ে? অপেক্ষার প্রহর শেষ হচ্ছে না পরীর

একসময় তিনিও ছিলেন মায়ের গর্ভে। এরপর পৃথিবীতে এলেন। বেড়ে উঠলেন অজো পাড়াগায়ে।

সেখান থেকে শহরে এসে হলেন চলচ্চিত্রের মস্তবড় নায়িকা। বিয়ে করে হয়েছেন স্ত্রীও। এখন আবার পেতে চলেছেন নতুন পরিচয়। মা হতে যাচ্ছেন পরী।

না, তিনি রূপকথার পরী নন। ঢালিউড ‘কুইন’ পরীমনি। গত ১০ জানুয়ারি আচমকাই মা হতে যাওয়ার খবর জানান আলোচিত এই চিত্রনায়িকা।

এও জানান, তার অনাগত সন্তানের বাবা অভিনেতা শরিফুল রাজ। গত ১৭ অক্টোবর তারা গোপনে বিয়ে করেন। পরে ধুমধাম করে পরীমনির বনানীর বাড়িতে ফের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা পালন করেন।

এবার অভিনেত্রীর সংসারে নতুন সদস্য আসার অপেক্ষা। কবে শেষ হবে সেই অপেক্ষার প্রহর? ছেলে নাকি মেয়ে আসছে নায়িকার কোলজুড়ে?

এসব জানতে যোগাযোগ করা হয় পরীমনির সঙ্গে। তিনি ঢাকাটাইমসকে জানান, ‘অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ২৭ সপ্তাহ পার হয়েছে।

ডাক্তার এখনো নির্দিষ্ট সময় দেননি। আশা করছি, আগামী ১০ কী ১২ সপ্তাহ পরই আমার সন্তান পৃথিবীতে আসবে।

সেভাবেই মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি। তবে ছেলে না মেয়ে হবে, তা জানি না। জানতে চাইও না। আল্লাহ যা দেবে, তাতেই খুশি।’

অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘মাতৃত্বের প্রতিটা মুহূর্ত দারুণ উপভোগ করছি। শরীরের মধ্যে একটি নতুন প্রাণ প্রতি মুহূর্তে বেড়ে উঠার অনুভূতি আমাকে বারবার শিহরিত করছে।

চিকিৎসক আমাকে সর্বোচ্চ সাবধানে চলাফেরা করতে বলেছেন। এই বিশেষ মুহূর্তে সিনেমা সংশ্লিষ্ট সব ধরণের কার্যক্রম একেবারে বন্ধ রেখেছি।’

স্বামীর প্রশংসা করে পরীমনি বলেন, ‘রাজ শতভাগ দেখভাল করছে। সারাক্ষণ আমার যত্ন নিচ্ছে। সোমবারও নিয়মিত চেকআপের জন্য নিয়ে গিয়েছিল হাসপাতালে। এছাড়া পছন্দের নানা ধরনের ডিশ নিয়মিত রান্না করে আমাকে খাওয়াচ্ছে।’

নায়িকা আরও জানান, ‘রাজ বাসায় থাকলে কিছুক্ষণ পর পরই ও আমার পেটে হাত দিয়ে বাবা বাবা বলে ডাকে। আমার সন্তান হয়তো বুঝতে পারে।

কারণ রাজ ডাকলেই পেটের মধ্যে নড়াচড়া টের পাই। অনাগত সন্তানের কথা মনে করে মাঝে মাঝেই আনন্দে আত্মহারা হয়ে যাই। এ যেন এক ভীষণ সুখের সময় পার করছি দুজনে।’

প্রসঙ্গত, গত ২৭ অক্টোবর পরীমনির সঙ্গে শরিফুল রাজের বিয়েটা হয়েছিল কোনো অনুষ্ঠান ছাড়াই, শুধু সাক্ষীদের উপস্থিতিতে।

রাজদের আফতাবনগরের বাসায় হয়েছিল সেই বিয়ে। এরপর গত ২২ জানুয়ারি রাতে পরীমনির বনানীর বাসায় জাঁকজমক অনুষ্ঠান করে ফের তারা বিয়ে করেন।

ওই বিয়েতে দুই পরিবারের সদস্য এবং আত্মীয়-স্বজন ছাড়াও শোবিজের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। বিয়ের দেনমোহর ধরা হয়েছিল ১০১ টাকা।

পরীমনি এই দুটি বিয়ে করেছিলেন চলচ্চিত্রে আসার আগে। চলচ্চিত্রে আসার পর ২০২০ সালের ১৪ এপ্রিল বিনোদন সাংবাদিক এবং কালচারাল জার্নালিস্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি তামিম হাসানের সঙ্গে বাগদান সেরেছিলেন নায়িকা।

সেই অনুষ্ঠানের বহু ছবি এখনও ঘুরছে গুগলসহ সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন মাধ্যমে। গত বছরের ১৪ এপ্রিল পরীমনি ও তামিমের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু তার আগেই ভেঙে যায় সম্পর্ক। যদিও ঢালিউডে কান পাতলে শোনা যায়, তারা নাকি বিয়েও করেছিলেন। কিন্তু টেকেনি সে সংসার।

এরপর গত বছরের মার্চে থিয়েটারকর্মী ও চলচ্চিত্রের সহকারী পরিচালক কামরুজ্জামান রনিকে খুবই অল্প দিনের পরিচয়ে বিয়ে করেন পরীমনি।

সে সময় হৃদি হকের পরিচালনায় ‘১৯৭১: সেই সব দিন’ নামে একটি ছবিতে অভিনয় করছিলেন এই নায়িকা। রনি ছিলেন সেটির সহকারী পরিচালক। সেখান থেকেই প্রেম, পরে বিয়ে। গত ১০ মার্চ বিয়ে করেছিলেন তারা। কিন্তু সে সংসার তিন মাসও টেকেনি।

এর কয়েক মাস না যেতে গত ১৭ অক্টোবর পরীমনি বিয়ে করেন শরিফুল রাজকে। এই অভিনেতার সঙ্গে পরীর পরিচয় কাজের সূত্রে।

গত ১ সেপ্টেম্বর জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর ‘মনপুরা’ ছবির পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিমের পরিচালনায় ‘গুনিন’-এর শুটিং শুরু করেন পরীমনি। রাজ সেখানে পরীর নায়ক।

ব্যস, একসঙ্গে কাজ করতে গিয়েই তারা একে-অন্যের প্রেমে পড়েন। মাত্র এক সপ্তাহের পরিচয়ে হয় পরিণয়।

এখন সেই রাজের সন্তানের মাও হতে চলেছেন। কাজেই, সব বিতর্কই অতীত। পরীমনির হৃদয়জুড়ে এখন শুধুই রাজ। দুই তারকা অপেক্ষায়, কবে পৃথিবীতে আসবে তাদের সন্তান। অপেক্ষায় অনুরাগীরাও।

About admin

Check Also

আবাদি জমিতে হাঁসের ডিম খুজে পেলেন কৃষক, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

আবাদি জমিতে কৃষকের একসাথে অনেকগুলো হাঁসের ডিম খুঁজে পাওয়ার এক ভিডিও নেট দুনিয়ায় ব্যাপক সাড়া …